default-image

অন্যত্র বিবাহ হলেও, জুলেখার

প্রেমিকের নামে জিডি লেখা হলো, পুলিশের কাছে

প্রেমে কী রহস্য আছে?

—এই পর্যন্ত লিখে, এরপর আর কিছুই বলার আর মানে নেই।

কারণ, জুলেখা নাইওরে এলেই সঙ্গে আসে নতুন জামাই

তখন, সন্ধ্যার পরপরই, সারারাত, গোলদার বাড়ির

বাঁশবাগানের ও-দিক থেকে মারাত্মক বাঁশি শোনা যায়।

বিজ্ঞাপন

২.

তরুণ কবির একরোখা ভাব, অত বেশি সিস্টেম মানে না।

দ্রোহ তার ভালোবাসা।

আগুন বাড়ায় পিপাসা

রোদের চাকায় ঘুরে দিন তার মেঘলিপ্ত চিন্তার

শব ও সম্ভাবনার ছাপচিত্রের মধ্যে ঘুরতে ঘুরতে

কাঁচাবাজারে, কোনো একটা বড় রুইমাছের

চোখের মধ্যে নিজের চোখ খুঁজে ফেরার বাতিকবিলাস

সে তো শুধু তরুণ কবিরই আছে।

চুমুর বদলে চা খেতে খেতে

আপা বলেন, কীভাবে তরুণ কবিরা বাঁচে?

৩.

চা’খোর বিপ্লবীদের দেখলেই

আমার একটা প্রশ্ন মাথা কুটে মরে—

ঘর থেকে কি বাইরে যাব, প্রত্যেকদিন

নাকি বাইরে থেকেই ফিরে আসব ঘরে?