সর্বাধিনায়ক

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

default-image
বিজ্ঞাপন

প্রতিরক্ষামন্ত্রী

তাজউদ্দীন আহমদ

default-image

প্রধান সেনাপতি

কনে৴ল (পরে জেনারেল) মুহম্মদ আতাউল গনি ওসমানী

default-image
বিজ্ঞাপন

এস ফোর্স

মেজর (পরে মেজর জেনারেল) কে এম সফিউল্লাহ বীর উত্তম।

দ্বিতীয় ও একাদশ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট

default-image

জেড ফোর্স

মেজর (পরে লেফটেন্যান্ট জেনারেল) জিয়াউর রহমান বীর উত্তম।

প্রথম, তৃতীয়, অষ্টম ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট এবং রওশন আরা ব্যাটারি (গোলন্দাজ)

default-image

কে ফোর্স

মেজর (পরে মেজর জেনারেল) খালেদ মোশাররফ বীর উত্তম।

চতুর্থ, নবম, দশম ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট এবং মুজিব ব্যাটারি (গোলন্দাজ)

default-image
বিজ্ঞাপন

১ নম্বর সেক্টর

সাব–সেক্টর ৫টি। ২ হাজার ১০০ নিয়মিত সেনা এবং ২০ হাজার গণবাহিনীর যোদ্ধা। মোট ২২ হাজার ১০০ জন।

সেক্টর অধিনায়ক: জিয়াউর রহমান (১০ জুন পর্যন্ত)। ক্যাপ্টেন (পরে মেজর) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম

default-image

২ নম্বর সেক্টর

সাব–সেক্টর ৬টি। ৪ হাজার নিয়মিত সেনা এবং ৩০ হাজার গণবাহিনীর যোদ্ধা, মোট ৩৪ হাজার জন)।

সেক্টর অধিনায়ক: খালেদ মোশাররফ (২১ অক্টোবর পর্যন্ত) ও মেজর (পরে লেফটেন্যান্ট কর্নেল) এ টি এম হায়দার বীর উত্তম

default-image

৩ নম্বর সেক্টর

সাব–সেক্টর ৭টি। ৬ হাজার ৬৯৩ নিয়মিত সেনা এবং ২৫ হাজার গণবাহিনীর যোদ্ধা, মোট ৩১ হাজার ৬৯৩ জন।

সেক্টর অধিনায়ক: কে এম সফিউল্লাহ (৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত)

মেজর (পরে ব্রিগেডিয়ার) এ এন এম নূরুজ্জামান বীর উত্তম

default-image

৪ নম্বর সেক্টর

সাব–সেক্টর ৬টি। ৯৭৫ নিয়মিত সেনা এবং ৯ হাজার গণবাহিনীর যোদ্ধা, মোট ৯ হাজার ৯৭৫ জন।

সেক্টর অধিনায়ক: মেজর (পরে মেজর জেনারেল) চিত্তরঞ্জন দত্ত বীর উত্তম।

default-image

৫ নম্বর সেক্টর

সাব–সেক্টর ৬টি। ১ হাজার ৯৩৬ নিয়মিত সেনা এবং ৯ হাজার গণবাহিনীর যোদ্ধা, মোট ১০ হাজার ৯৩৬ জন।

সেক্টর অধিনায়ক: মেজর (পরে লেফটেন্যান্ট জেনারেল) মীর শওকত আলী বীর উত্তম।

default-image

৬ নম্বর সেক্টর

সাব–সেক্টর ৫টি। ২ হাজার ৩১০ নিয়মিত সেনা এবং ১১ হাজার গণবাহিনীর যোদ্ধা, মোট ১৩ হাজার ৩১০ জন।

সেক্টর অধিনায়ক: উইং কমান্ডার (পরে এয়ার ভাইস মার্শাল) এম কে বাশার বীর উত্তম।

default-image

৭ নম্বর সেক্টর

সাব–সেক্টর ৯টি। ২ হাজার ৩১০ নিয়মিত সেনা এবং ১২ হাজার ৫০০ গণবাহিনীর যোদ্ধা, মোট ১৪ হাজার ৮১০ জন।

সেক্টর অধিনায়ক: মেজর নাজমুল হক (জুলাই পর্যন্ত)। মেজর (পরে লেফটেন্যান্ট কর্নেল) কাজী নূর-উজ-জামান, বীর উত্তম

default-image
default-image

৮ নম্বর সেক্টর

সাব-সেক্টর ৭টি। ৩ হাজার ৩১১ নিয়মিত সেনা এবং ৮ হাজার গণবাহিনীর যোদ্ধা, মোট ১১ হাজার ৩১১ জন।

সেক্টর অধিনায়ক: মেজর (পরে লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবু ওসমান চৌধুরী (১৫ আগস্ট পর্যন্ত) ও মেজর (পরে মেজর জেনারেল) এম আবুল মঞ্জুর বীর উত্তম

default-image
default-image

৯ নম্বর সেক্টর

সাব–সেক্টর ৩টি। ৩ হাজার ৩১১ নিয়মিত সেনা এবং ৮ হাজার গণবাহিনীর যোদ্ধা, মোট ১১ হাজার ৩১১ জন।

সেক্টর অধিনায়ক: মেজর এম এ জলিল

default-image

১০ নম্বর সেক্টর

১৭ জন নিয়মিত সেনা এবং ৫০০ গণবাহিনীর যোদ্ধা, মোট ৫১৭ জন নৌ-কমান্ডো) প্রধান সেনাপতি এম এ জি ওসমানীর সরাসরি নিয়ন্ত্রণাধীন বিশেষ বাহিনী।

১১ নম্বর সেক্টর

সাব–সেক্টর ৭টি। ২ হাজার ৩১০ নিয়মিত সৈন্য এবং ২৫ হাজার গণবাহিনীর যোদ্ধা, মোট ২৭ হাজার ৩১০ জন।

সেক্টর অধিনায়ক: মেজর (পরে লেফটেন্যান্ট কর্নেল) আবু তাহের, বীর উত্তম (১৪ নভেম্বর পর্যন্ত) ও ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট (পরে উইং কমান্ডার) এম হামিদুল্লাহ খান বীর প্রতীক, (১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত)

default-image
default-image

সূত্র: বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধ সেক্টরভিত্তিক ইতিহাস, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়